খ্রীষ্টিয়ান ধর্ম কি এবং খ্রীষ্টিয়ানরা কি বিশ্বাস করে?



প্রশ্ন: খ্রীষ্টিয়ান ধর্ম কি এবং খ্রীষ্টিয়ানরা কি বিশ্বাস করে?

উত্তর:
খ্রীষ্টিয়ান বিশ্বাসের কেন্দ্র বিন্দু ১ করিন্থীয় ১৫:১-৪পদে বিবৃত হয়েছে। যীশু আমাদের পাপের জন্য মরেছিলেন, তাঁকে কবর দেওয়া হয়েছিল; তিনি পুনরুত্থিত হয়েছিলেন এবং যত লোক তাঁকে বিশ্বাসে গ্রহণ করল, তিনি সকলের জন্য পরিত্রাণ বা উদ্ধারের সুযোগ করে দিলেন। অন্য সব ধর্মমতের চেয়ে এই ধর্মের অনুপম বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, খ্রীষ্টিয়ান ধর্ম ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠানের চেয়ে সম্পর্কের উপরে বেশী জোর দেয়। খ্রীষ্টিয়ান ধর্মের লক্ষ্য হচ্ছে, ‘এটা করতে হবে’, ‘ওটা করা যাবে না’ ইত্যাদির চেয়ে ঈশ্বরের সাথে ঘনিষ্টভাবে চলতে অভ্যাস করা। যীশু খ্রীষ্টের কাজের মধ্য দিয়ে এবং পবিত্র আত্মার পরিচর্যার ফলে এই সম্পর্ক সম্ভব হয়েছে।

বিশ্বাসের এই কেন্দ্র বিন্দু ছাড়াও, বেশ অনেক বিষয় আছে, বা বলা চলে থাকা উচিৎ যা থেকে বোঝা যায় খ্রীষ্টিয়ান ধর্ম কি এবং খ্রীষ্টিয়ান ধর্ম কি বিশ্বাস করে। খ্রীষ্টিয়ানদের বিশ্বাস হচ্ছে, বাইবেল ঈশ্বরের অনুপ্রেরণায় “ঈশ্বরের কাছ থেকে এসেছে” এবং তা ঈশ্বরের বাক্য। বাইবেলের শিক্ষায় রয়েছে সকল বিশ্বাস ও অভ্যাসের চুড়ান্ত অনুজ্ঞা (২ তীমথিয় ৩:১৬; ২ পিতর ১:২০-২১)। খ্রীষ্টিয়ানরা এক ঈশ্বরে বিশ্বাস করে, যা তিন সত্তায়, অর্থাৎ পিতা, পুত্র (যীশু খ্রীষ্ট) এবং পবিত্র আত্মায় বিরাজমান।

খ্রীষ্টিয়ানরা বিশ্বাস করে যে, ঈশ্বরের সাথে সম্পর্ক বজায় রাখার জন্যই বিশেষভাবে মানুষজাতিকে সৃষ্টি করা হয়েছে। কিন্তু পাপ সব মানুষকে ঈশ্বরের কাছ থেকে আলাদা করে দিয়েছে (রোমীয় ৩:২৩; ৫:১২)। খ্রীষ্টিয়ান ধর্ম আরও শিক্ষা দেয় যে, যীশু খ্রীষ্ট একজন পূর্ণ ঈশ্বর হিসাবে এবং একজন পূর্ণ মানুষ হিসাবে এই পৃথিবীতে হেঁটে বেড়িয়েছেন (ফিলিপীয় ২:৬-১১), তিনি ক্রুশে মৃত্যুবরণ করেছেন। খ্রীষ্টিয়ানরা বিশ্বাস করে, তাঁর মৃত্যুর পর, খ্রীষ্ট কবরে যান, পুনরায় বেঁচে ওঠেন এবং এখন তিনি পিতার ডান পাশে আছেন আর সব সময়ের জন্য বিশ্বাসীদের পক্ষে অনুরোধ করছেন (ইব্রীয় ৭:২৫)। খ্রীষ্টিয়ানদের দাবী, যীশুর ক্রুশে মৃত্যু সব মানুষের পাপের বেতন (জরিমানা) দেবার জন্য সম্পূর্ণভাবে যথেষ্ট এবং এভাবেই ঈশ্বরের সাথে মানুষের ভাংগা সম্পর্ক পুনরুদ্ধার হয়েছে (ইব্রীয় ৯:১১-১৪; ১০:১০; রোমীয় ৫:৮;৬:২৩)।

খ্রীষ্টিয়ান ধর্ম এই শিক্ষা দেয় যে, উদ্ধার পেতে হলে ও মৃত্যুর পর স্বর্গে ঢোকার অধিকার পেতে হলে একজনকে অবশ্যই ক্রুশের উপরে যীশুর পরিপূর্ণ কাজের প্রতি সম্পূর্ণ বিশ্বাস করতে হবে। যদি আমরা বিশ্বাস করি, খ্রীষ্ট আমাদের পরিবর্তে মৃত্যুবরণ করেছেন, আমাদের পাপের বেতন (জরিমানা) প্রদান করেছেন এবং পুনরায় জীবিত হয়ে উঠেছেন, তবেই আমরা উদ্ধার পাই। পরিত্রাণ বা উদ্ধার দেবার জন্য এর চেয়ে বেশী আর কেউই কিছু দিতে পারে না। আমরা নিজেরা “ভাল কাজ” করে ঈশ্বরকে খুশী করতে পারি না, কারণ আমরা সকলেই পাপী (যিশাইয় ৫৩:৬; ৬৪:৬-৭)। এর চেয়ে বেশী আর কি করা যায়, যেখানে খ্রীষ্ট সম্পূর্ণ কাজটি করে দিয়েছেন! যীশু খ্রীষ্ট যখন ক্রুশের উপরে, তখন তিনি বলেছিলেন, “শেষ হয়েছে” (যোহন ১৯:৩০); এর মানে- পাপ মুক্তির কাজ শেষ হয়েছে।

খ্রীষ্টিয়ান ধর্ম অনুসারে, পরিত্রাণ বা উদ্ধার হচ্ছে পুরানো পাপের স্বভাব থেকে মুক্ত হওয়া এবং ঈশ্বরের সাথে সঠিক সম্পর্ক নিশ্চিত করা। আমরা যেখানে পাপের দাস ছিলাম, এখন আমরা খ্রীষ্টের দাস হই (রোমীয় ৬:১৫-২২)। বিশ্বাসীরা যতকাল এই পৃথিবীতে তাদের পাপ দেহ নিয়ে বেঁচে থাকে, ততকালই তাদের পাপের সাথে যুদ্ধ করে যেতে হয়। তবে, খ্রীষ্টিয়ানরা ঈশ্বরের বাক্য পড়ে ও নিজ জীবনে প্রয়োগ করে এবং নিজেকে পবিত্র আত্মার নিয়ন্ত্রণে রেখে, অর্থাৎ প্রতিদিনের সব কাজে আত্মার পরিচালনা নিয়ে পাপের সাথে যুদ্ধ করে জয়ী হতে পারে।

তাই, যখন অনেক ধর্ম পদ্ধতি বলে যে, একজন ব্যক্তিকে এটা করতে হবে, ওটা করা চলবে না, কিন্তু খ্রীষ্টিয়ান ধর্ম সেক্ষেত্রে শুধুমাত্র খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করা, যিনি আমাদের পাপের বেতন (জরিমানা)ক্রুশে মৃত্যুবরণ করার মধ্য দিয়ে পরিশোধ করেছেন এবং পুনরুত্থিত হয়েছেন। আমাদের পাপের ঋণ শোধ করা হয়েছে এবং ঈশ্বরের সাথে আমাদের সহভাগিতা হয়েছে। এখন আমরা পাপ স্বভাবের উপরে বিজয় অর্জন করেছি এবং ঈশ্বরের সাথে বাধ্যতায় ও সহভাগিতায় গমনাগমন করছি। এটাই সত্যিকার বাইবেল ভিত্তিক খ্রীষ্টিয়ান ধর্ম।



বাংলা হোম পেজে ফিরে যান



খ্রীষ্টিয়ান ধর্ম কি এবং খ্রীষ্টিয়ানরা কি বিশ্বাস করে?