হস্তমৈথুন- এটা কি বাইবেল অনুসারে পাপ?



প্রশ্ন: হস্তমৈথুন- এটা কি বাইবেল অনুসারে পাপ?

উত্তর:
পবিত্র বাইবেল সুস্পষ্টভাবে কখনই বলে নাই যে, হস্তমৈথুন বা এইরকম কাজ পাপ কি না। হস্তমৈথুন সম্পর্কে বলতে যে ঘটনাটি বার বার করে বাইবেলে বলা হয়েছে, তা আদি পুস্তক ৩৮:৯-১০ পদে ওননের ঘটনা। কেউ আবার এই অংশটি ব্যাখ্যা করে থাকে যে, মাটিতে “বীর্যপাত করা করা” একটা পাপ। যাইহোক্, এই অংশে কিন্ত নির্দিষ্ট করে তা বলা হয় নি। তবে ঈশ্বর ওননকে “মাটিতে বীর্যপাত করার” জন্য দোষী করেন নাই, কিন্তু সে তার ভাইয়ের বংশ রক্ষা করার দায়িত্ব পালন করতে অস্বীকার করেছিল বলেই দোষী করেছিলেন। এই পদে হস্তমৈথুনের বিষয় বলা হয় নাই বরং পারিবারিক কর্তব্য পালনের বিষয়টি ছিল গুরুত্বপূর্ণ। দ্বিতীয় যে শাস্ত্রাংশটিতে হস্তমৈথুন যে পাপ, সে সম্পর্কে প্রামাণিক হিসাবে কখনো উল্লেখ করা হয়, তা হচ্ছে মথি ৫:২৭-৩০ পদ। যীশু মূলত কামভাবের বিপক্ষে বলতে গিয়ে উল্লেখ করেছেন, “যদি তোমার ডান হাত তোমাকে পাপের পথে টানে তবে তা কেটে ফেলে দাও”(৩০ পদ)। এই পদের সাথে হস্তমৈথুনের সম্পর্ক একইরকম; মনে হয়, যীশু এই কথায় পরোক্ষভাবে হস্তমৈথুনের কথা বলতে চেয়েছেন।

যেহেতু হস্তমৈথুনকে বাইবেলে কোথাও পাপ বলে উল্লেখ করে নাই, সেহেতু প্রশ্ন ছাড়াই হস্তমৈথুনের কাজকে পাপ বলা যায় না। তবে হস্তমৈথুন অবশ্যই কামভাবে চিন্তা, মানে যৌন উত্তেজনা বা নীলছবি দেখার ফলেই ঘটে থাকে। এইসব সমস্যাগুলোর সমাধান করা প্রয়োজন। যদি কামভাব, অনৈতিক চিন্তা ও নীলছবি দেখা ছেড়ে দেওয়া যায় এবং এসবের উপরে জয়লাভ করা যায়, তাহলে হস্তমৈথুনও ভুল থাকা যায়। অনেক লোক আছে যারা হস্তমৈথুন করার কারণে নিজেদের দোষী বলে কষ্ট পায়, অথচ বাস্তবে যা কিছু এই কাজে তাদের পরিচালনা করে তার জন্য অনুশোচনা করা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

হস্তমৈথুন সম্পর্কে বাইবেলে উল্লেখিত কতক নীতিমালা প্রয়োগ করা যায়। ইফিষীয় ৫:৩ পদ একথা বলে, “কোন রকম ব্যভিচার, অশুচিতা আর লোভের কথা পর্যন্ত যেন তোমাদের মধ্যে শোনা না যায়।” এইসব বিষয়ের মধ্যে খুঁজে বের করা বেশ কষ্টকর যে হস্তমৈথুনও এর মধ্যে ধরা যায়। তবু, বাইবেল আমাদের শিক্ষা দেয় যে, “সেইজন্য তোমরা খাওয়া-দাওয়া কর আর যা-ই কর, সব কিছু ঈশ্বরের গৌরবের জন্য কোরো”(১ করিন্থীয় ১০:৩১)। কোন কিছুর জন্য আপনি যদি ঈশ্বরকে গৌরব দিতে না পারেন তাহলে তা তো করা আপনার উচিত না। যদি একজন লোক সত্যিই না বোঝে কোন্ কাজ ঈশ্বরকে গৌরবান্বিত করে, তবে তো সেটা পাপ: “বিশ্বাসের বিরুদ্ধে কোন কিছু করাই পাপ”(রোমীয় ১৪:২৩)। তাছাড়াও আমাদের মনে রাখা প্রয়োজন, আমাদের এই দেহ মুক্তি পেয়ে ঈশ্বরের নিজের হয়েছে। “তোমাদের অন্তরে যিনি বাস করেন এবং যাঁকে তোমরা ঈশ্বরের কাছ থেকে পেয়েছ, সেই পবিত্র আত্মার থাকবার ঘরই হল তোমাদের দেহ? তোমরা তোমাদের নিজেদের নও; অনেক দাম দিয়ে তোমাদের কেনা হয়েছে। তাই ঈশ্বরের গৌরবের জন্য তোমাদের দেহকে ব্যবহার কর” (১ করিন্থীয় ৬:১৯-২০)। এই মহান সত্য মনে রেখেই আমাদের দেহকে ব্যবহার করা উচিত। সবশেষে, এই নীতিমালার আলোকে বাইবেলের প্রেক্ষাপটে হস্তমৈথুনকে পাপ বলা যায়। নিঃসন্দেহে, হস্তমৈথুন ঈশ্বরের গৌরবজনক নয়; তা অনৈতকতার বাইরে নয়, এমন কি ঈশ্বর যে আমাদের দেহের মালিক, তাও প্রমাণিত করে না।



বাংলা হোম পেজে ফিরে যান



হস্তমৈথুন- এটা কি বাইবেল অনুসারে পাপ?