কে ঈশ্বরকে সৃষ্টি করেছেন? ঈশ্বর কোত্থেকে এসেছেন?



প্রশ্ন: কে ঈশ্বরকে সৃষ্টি করেছেন? ঈশ্বর কোত্থেকে এসেছেন?

উত্তর:
নাস্তিক ও সন্দেহবাদীরা সাধারণভাবে যুক্তি দেখিয়ে বলেন যে, সব কিছুরই একটা কারণ থাকে, তাহলে ঈশ্বর যে আছেন তারও কোন কারণ থাকতে হবে। উপসংহার হচ্ছে, যদি ঈশ্বর যে আছেন তার কোন কারণ দেখাতে হয়, তাহলে তো ঈশ্বর আসলে ঈশ্বর নয় (আর যদি ঈশ্বর আসলে ঈশ্বর না হন, তাহলে অবশ্যই ঈশ্বর বলে কেউ নাই)। তবে, এইসব মৌলিক প্রশ্নের চেয়ে আরও সূক্ষ্ম প্রশ্ন হচ্ছে, “কে ঈশ্বরকে সৃষ্টি করেছেন?” সকলেই জানে যে, শূন্য থেকে কোন কিছু আসে না। তাই, যদি ঈশ্বর বলে “কিছু থাকে”, তাহলে তো তাঁর তো কোন একটা কারণ থাকতে হবে, তাই না?

এই প্রশ্নটা নিশ্চয়ই খুবই সূক্ষ্ম চালাকি, কারণ তা আমাদের চুপি চুপি মিথ্যা ধারণার দিকে নিয়ে যায় যে, ঈশ্বর কোন একটা স্থান থেকে এসেছেন। তাহলে, সেই স্থান কোথায় হতে পারে? এর উত্তরে বলতে হয়, এই প্রশ্নের কোন অর্থ হয় না। এটা হচ্ছে এই প্রশ্নের মত: “নীল গন্ধ কেমন?” নীল আসলে তো গন্ধ পাবার মত কোন পর্যায়ে পড়ে না, তাই এরকম প্রশ্নে রয়েছে খূঁত। ঠিক একইভাবে, ঈশ্বর কোন কিছুর পর্যায়ে পড়ে না যা সৃষ্টি হয়েছে বা কোন কারণবশত রূপায়িত হয়েছে। ঈশ্বর হচ্ছেন কোন কারণের বাইরে এবং সৃষ্টিরও বাইরে; তিনি শুধুই আছেন।

আমরা কিভাবে এটা জানতে পারি? আমরা জানি, শূন্য থেকে কিছুই আসে না। তাই, যখন কোন কিছুরই অস্তিত্ব ছিল না, তাহলেও শুন্য থেকে কিছু আসে নাই; তাহলে কিছু না থেকে কোন কিছু আসতেও পারে না, কিন্তু কিছু তো আছেই। তাই, যেহেতু, একেবারে শূন্য হতেই পারে না, সেহেতু কিছু না কিছুর অস্তিত্ব থাকতে হবেই। এই চিরকালের অস্তিত্ব সম্পন্ন কিছুকে আমরা বলি ঈশ্বর। ঈশ্বর হচ্ছেন কারণহীন কোন কিছু বা অস্তিত্ব, যার দ্বারা সবকিছুই অস্তিত্বপ্রাপ্ত হয়েছে। ঈশ্বর হচ্ছেন সৃষ্টিকর্তা, কিন্তু সৃষ্ট নয়, অথচ তিনিই বিশ্ব ব্রম্হান্ড এবং তার মধ্যেকার সবকিছুই সৃষ্টি করেছেন।



বাংলা হোম পেজে ফিরে যান



কে ঈশ্বরকে সৃষ্টি করেছেন? ঈশ্বর কোত্থেকে এসেছেন?